যেসব অবস্থায় রোযা ভাঙা জায়েয


১. হঠাৎ সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েছে, এমন কোনো
রোগ যার ফলে জীবন বিপদাপন্ন অথবা মোটর দুর্ঘটনায় আহত, উঁচু জায়গা থেকে পড়ে
অবস্থা আশংকাজনক এমন অবস্থায় রোযা ভাঙা জায়েয।
২. কেউ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছে এবং জীবনের
আশংকা নেই কিন্তু আশংকা যে রোযা যদি ভাঙা না হয় তাহলে রোগ খুব বেড়ে যাবে,
এমন অবস্থায় রোযা ভাঙার অনুমতি আছে।
৩. কারও এমন প্রচন্ড ক্ষুধা তৃষ্ণা লেগেছে
যে, কিছু পানাহার না করলে জীবন যাওয়ার আশংকা রয়েছে, তাহলে এমন অবস্থায়
রোযা ভাঙা দুরস্ত আছে।
৪. কোনো গর্ভবতী মেয়েলোকের এমন দুর্ঘটনা
হলো যে, তার নিজের অথবা পেটের বাচ্চার জীবনের আশংকা হলো, এমন অবস্থায় রোযা
ভাঙার এখতিয়ার আছে।
৫. কাউকে সাপে দংশন করেছে এবং তাৎক্ষনিকভাবে ওষুধ পত্রের প্রয়োজন। এমন অবস্থায় রোযা ভাঙা উচিত।
৬. দুর্বলতা থাকা সত্ত্বেও সাহস করে রোযা
রাখা হলো। তারপর মনে হলো যে, যদি রোযা ভাঙা না হয় তাহলে জীবনের আশংকা
রয়েছে, অথবা সাংঘাতিকভাবে রোগ বেড়ে যেতে পারে। এমন অবস্থায় রোযা ভাঙার
অনুমতি আছে।
কাযা রোযার মাসায়েল
১. রমযানের যেসব রোযা কোনো কারণে করা হয়নি, তার কাযা আদায় করতে অযথা বিলম্ব করা উচিত নয়। যতো শীঘ্র করা যায় ততোই ভালো।
২. রমযানের রোযা হোক বা অন্য কোনো রোযা,
তা ক্রমাগত করা জরুরী নয়। এটাও জরুরী নয় যে, ওজর শেষ হওয়ার সাথে সাথেই করতে
হবে। সুযোগ মতো কাযা আদায় করলেই চলবে।
৩. রোযার কাযা ক্রমানুসারে করা ফরয নয়। যেমন কাযা রোযা না করেও রমযানের চলতি রোযা করা যায়।
৪. কাযা রোযা রাখার জন্যে দিন তারিখ নির্দিষ্ট করা জরুরী নয়। যতো রোযা কাযা হয়েছে তার বদলার ততোগুলো রোযা রাখতে হবে।
৫. যদি রমযানের দু বছরের রোযা কাযা পড়ে
থাকে, তাহলে কোন বছরের কাযা আদায় করা হচ্ছে তা নির্দিষ্ট হওয়া জরুরী।
এজন্যে এ নিয়ত করতে হবে যে, অমুক বছরের কাযা রোযা রাখা হচ্ছে।
৬. কাযা রোযা রাখার জন্যে রাতেই নিয়ত করা
জরুরী। সুবেহ সাদেকের পর কাযা রোযার নিয়ত করলে তা দুরস্ত হবে না। সে রোযা
নফল হয়ে যাবে। কাযা রোযা পুনরায় রাখতে হবে।
৭. রমযানের কিছু রোযা কাযা হয়ে গেল। এ
কাযা রোযা রাখার সুযোগ পাওয়া গেল না এবং আর এক রমযান এসে গেল। তাহলে প্রথমে
রমযানের রোযা রাখতে হবে, কাযা রোযা পরে রাখবে।

৮. কেউ সন্দেহে দিনে রমযানের রোযা রাখলো।
পরে জানা গেল যে, সেদিন শাবানের ৩০ তারিখ। তাহলে এ রোযা নফল হয়ে যাবে যদিও
তা মাকরূহ হবে। আর যদি সে রোযা ভেঙে ফেলা হয় তো তার কাযা ওয়াজিব হবে না।

via Blogger http://ift.tt/2iTuvbK

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s